Priyanka Chopra: ‘ছক কষে বিশ্বসুন্দরী বানানো হয় প্রিয়াঙ্কাকে!’ ২২ বছর পরে কে তুলছেন এমন অভিযোগ

Advertisement

লেইলানি, ২০০০ সালের মিস বার্বাডোজ এবং বর্তমান সময়ের বিখ্যাত ইউটিউবার ২২ বছর পর প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার দিকে আঙুল তুললেন। প্রশ্ন তুললেন তাঁর ২০০০ সালের বিশ্বসুন্দরীর খেতাব জয় নিয়ে। তিনি সেই ভিডিয়োয় দাবি করেছেন যে কীভাবে সেই প্রতিযোগিতায় প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে প্রাধান্য এবং গুরুত্ব দেওয়া হয়। এবং একই সঙ্গে তাঁর জয় সুনিশ্চিত করা হয়।

সম্প্রতি মিস ইউএসএ প্রতিযোগিতা নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। সকলে এই বিষয়ে তদন্তের দাবি করেছেন। তাঁদের মতে শোতে সঠিক বিচার হয়নি। সেই বিষয় নিয়ে লেইলানি এই ভিডিও শুরু করেছেন। এই বিষয়টি উল্লেখ করে লেইলানি বলেন যে গোটা ঘটনা তাঁকে ২০০০ সালের বিশ্বসুন্দরীর প্রতিযোগিতার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। তাঁর মতে যেহেতু একটি ভারতীয় টিভি যেহেতু বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার অন্যতম স্পন্সর ছিল, সেহেতু ১৯৯৯, এবং ২০০০ সালের বিশ্বসুন্দরী ভারত থেকেই একজনকে করা হয়েছিল।

লেইলানি তাঁর ভিডিয়োয় জানান, ‘একই জিনিসের সম্মুখীন আমাকেও হতে হয়েছিল। আমি মিস বার্বাডোজ হয়েছিলাম কিন্তু বিশ্বসুন্দরীর খেতাব জয় করেছিলেন মিস ইন্ডিয়া। মনে রাখবেন তার আগের বছরেও বিশ্বসুন্দরীর খেতাব মিস ইন্ডিয়া জিতেছিলেন। এই শোয়ের অন্যতম স্পন্সর ছিল ভারতীয় চ্যানেল। ফলে গোটা জিনিসটা আমার বেশ পরিচিত।’ মন্তব্য করেন লেইলানি।

এছাড়াও তিনি জানান প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নাকি অতিরিক্ত গুরুত্ব এবং প্রাধান্য দেওয়া হয়েছিল শোতে। তাঁর জামা নাকি সুন্দর করে বানানো হয়েছিল। প্রিয়াঙ্কার ঘরেই নাকি খাবার পৌঁছে দিয়ে আসা হতো। এরম একাধিক বিস্ফোরক অভিযোগ করেন লেইলানি। এছাড়া তিনি অভিযোগ করেন প্রিয়াঙ্কার ছবি খবরের কাগজে বড় করে বেরোলেও বাকি মেয়েদের ছবি একসঙ্গে বের করে হত।

স্পেশাল ট্রিটমেন্ট করা হতো প্রিয়াঙ্কাকে। এমনটাই জানান লেইলানি। তাও দীর্ঘ ২২ বছর পর। তাঁর মতে প্রিয়াঙ্কাকে জানার পর তিনি বুঝেছিলেন এই শোয়ের জন্য তিনি নাকি মোটেই সুযোগ্য নন। এই ভিডিওটি রেডইটে শেয়ার করা হয়। এবং ভারতীয়রা এই ভিডিয়োটির বিরোধিতা করেন। এবং বলেন মোটেই প্রিয়াঙ্কার জয় মেকি বা ভুল ছিল না। তাঁদের বক্তব্য ২০ বছর পর কেন এই বিতর্ককে উস্কানি দেওয়া হচ্ছে। হ্যাঁ, এটা ঠিক সেই প্রতিযোগিতায় প্রিয়াঙ্কা একটা ভুল উত্তর দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন ২০০০ সালে জীবিত আছেন এমন এক মনীষীর নাম মাদার টেরেসা। এটা ছাড়া তিনি প্রতিটি পর্বে দারুণ পারফর্ম করেছিলেন। প্রিয়াঙ্কা কেন সেই শোতে মাদার টেরেসার নাম বলেছিলেন সেটা নিয়েও বিস্তর আলোচনা হয়েছিল।

সেই ২০০০ সালে বিশ্বসুন্দরীর খেতাব জয় করার পর প্রিয়াঙ্কা হিন্দি ছবিতে কাজ করা শুরু করেন এবং বর্তমানে তিনি নিক জোনাসের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে সংসার করছেন।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।