Duare Sarkar Camp: দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পেই তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ, উত্তপ্ত বর্ধমান

Advertisement

গত এক নভেম্বর থেকে রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। আর সেই ক্যাম্প চলাকালীন প্রকাশ্যে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ল তৃণমূলের দুই গোষ্ঠী। একে অপরের উপর চড়াও হলেন দুই গোষ্ঠীর কর্মী সমর্থকরা। আবারও প্রকাশ্যে এল তৃণমূলের আদি বনাম নব্য গোষ্ঠীর দ্বন্দ্ব। বৃহস্পতিবার পূর্ব বর্ধমানের বর্ধমান শহরের টাউনহলে ঘটনাটি ঘটেছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ক্যাম্পে মোতায়েন করা হয় পুলিশ। যদিও তৃণমূল নেতৃত্ব এই ঘটনাকে গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলে মানতে নারাজ।

বর্ধমান পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর মিঠু সিং ওই ওয়ার্ডের তৃণমূল নেতারা বিরুদ্ধে দলের কর্মীদের মারধরের অভিযোগ তুলেছেন। তার অভিযোগ, দলের পুরনো কর্মীদের ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে নতুন কর্মীরা। তিনি জানান, দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষদের পরিষেবা দিচ্ছিলেন তৃণমূল কর্মী বাপ্পা ঘোষ। সেই সময় স্থানীয় তৃণমূল নেতা গোলাপ সোনকারের কর্মীরা বাপ্পা ঘোষের উপর হামলা চালায়। তাকে বেল্টে করে মারধর করে। তার জামা ছিঁড়ে দেয় বলেও অভিযোগ। তারপরেই দুই গোষ্ঠীর কর্মীদের মধ্যে মারপিট বেঁধে যায়। বাপ্পা ঘোষের অভিযোগ, তিনি দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আসা এলাকার মানুষদের সাহায্য করছিলেন। সেইনসময় গোলাপ সোনকারের ছেলেরা এসে তাকে ডেকে নিয়ে যায় ও তার উপর চরাও হয়। তার দাবি তিনি মিঠু সিংয়ের সঙ্গে কাজ করছেন বলেই তাকে মারধর করা হয়েছে।

যদিও বর্ধমান শহরের ৭নম্বর ওয়ার্ডের তৃনমূল নেতা সৌম্যশুভ্র রায় এটিকে গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলে মানতে নারাজ। তিনি জানান, ‘দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে একটি ছেলের সঙ্গে বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটেছে। আমাদের কাউন্সিলর মিঠু সিং একটু উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন। তখন আমি ওনাকে শান্ত হতে বলি।’

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।