কীভাবে বোলারদের রক্তচাপ বাড়িয়ে দেন? বলছেন ব্যাটে উত্তাপ ছড়ানো ‘স্কাই’

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (ICC T20 World Cup 2022) আগেই ছন্দে ছিলেন সূর্যকুমার যাদব (Surya Kumar Yadav)। প্রতি ম্যাচেই চলছে তাঁর দাপট। ব্যাট হাতে বিপক্ষকে উড়িয়ে দিচ্ছেন টিম ইন্ডিয়ার (Team India) এই ব্যাটার। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া (Australia) ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে (South Africa) বুঝে নেওয়ার পর এবার কাপ যুদ্ধের মঞ্চেও দাগ কাটছেন সূর্য। তাই এই মুহূর্তে পাকিস্তানের মহম্মদ রিজওয়ানকে পিছনে ফেলে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা ‘স্কাই’। কিন্তু কীভাবে তিনি এত কম সময়ের মধ্যে বাইশ গজে দাপট দেখাতে পারছেন? সূর্যের দাবি তিনি বোলারের নাম নয়, ক্রিজে গিয়ে বলের ‘মেরিট’ দেখে খেলেন। আর এতেই সাফল্য পাচ্ছেন। 

আইসিসি-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সূর্য বলেন, ‘দেশের হয়ে যত বেশি ম্যাচ খেলতে পারব সেটাই হবে আমার পাওনা। তবে শুধু ম্যাচ খেলা নয়, দলকে ম্যাচ জেতাতেও ভূমিকা নিতে চাই। এটাই আমার একমাত্র লক্ষ্য। তাই আমি ক্রিজে গিয়ে বোলারের নাম দেখে ব্যাট করার পক্ষপাতি নয়। বরং বলের মেরিট দেখে রান করতে চাই। তবে একইসঙ্গে নেটে ব্যাট করার সময় বিশেষ বোলারের বিরুদ্ধে কোন বিশেষ শট খেলব সেটা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করতে থাকি।’ 

পাকিস্তানের (Pakistan) বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ভালো শুরু করেও ১৫ রানে ফিরেছিলেন। তবে সিডনির স্লো পিচে নেদারল্যান্ডসের (Netharlands) বোলারদের কচুকাটা করেছিলেন ‘স্কাই’। ২৫ বলে ৫১ রানে অপরাজিত থাকার সুবাদে হয়েছিলেন ম্যাচের সেরা। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa)বিরুদ্ধে দল হেরে গেলেও সূর্যের তেজ কিন্তু কমেনি। প্রোটিয়াসদের বিরুদ্ধে ৪০ বলে ৬৮ রান করেন। বাংলাদেশের (Bangladesh) বিরুদ্ধে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছিল ১৬ বলে ৩০ রান। 

আরও পড়ুন: ICC T20 World Cup, IND vs BAN: ক্ষোভে ফুঁসছে সাকিবের বাংলাদেশ! কোন দুই কারণে আইসিসি-কে নালিশ করবে বিসিবি?

আরও পড়ুন: ICC T20 World Cup 2022, IND vs BAN: কাপ যুদ্ধে মোক্ষম সময় ভারতের বিরুদ্ধে দুটি রান আউট! এবং টাইগার্সদের স্বপ্নভঙ্গ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে আসার আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন সূর্য। ঠাণ্ডা মাথায় বোলারদের ‘খুন’ করা সূর্যের পরিসংখ্যান দেখলে চোখ কপালে উঠে যেতে বাধ্য। ৩ ম্যাচে রান ছিল ১১৫। সর্বাধিক রান করেছিলেন হায়দরাবাদ। ৩৬ বলে ৬৯ রান। গড় ৩৮.৩৩। স্ট্রাইক রেট ১৮৫.৪৮। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও সফল হয়েছিলেন এই মুম্বইকর। ৩ ম্যাচে রান ছিল ১১৯। সর্বাধিক ৩৯ বলে ৬১ রান করেছিলেন গুয়াহাটিতে। গড় ৫৯.৫০। স্ট্রাইক রেট ১৯৫.০৮। সামগ্রিক ভাবে এই মারকুটে মুম্বইকর জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও সফল। মাত্র ৩৮ ম্যাচে করে ফেলেছেন ১২০৯ রান। গড় ৪০.৩০। স্ট্রাইক রেট ১৭৭.২৭। সঙ্গে জ্বলজ্বল করছে ১টি শতরান ও ১১টি অর্ধ শতরান। 

এশিয়া কাপে তাঁর পারফরম্যান্স ভালো ছিল না। তবে গত দুই সিরিজে সূর্যকে বাইশ গজে উত্তাপ ছড়াতে দেখা গিয়েছে। ফলে বোঝাই যাচ্ছিল যে টি-টিয়েন্টি বিশ্বকাপে রোহিতের টিম ইন্ডিয়ার ঝুলিতে ট্রফি ভরাতে হলে, বাইশ গজে সূর্যের ব্যাটিং তাণ্ডব বজায় রাখা খুবই জরুরী। আর তাই হচ্ছে। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৫২ রান করার পর, প্রথম ওয়ার্ম আপ ম্যাচে অজিদের বিরুদ্ধে ৫০ রান করেছিলেন। তখন থেকেই বিপক্ষকে পুড়িয়ে ছাই করে দেওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন সূর্য। আর সেই উত্তাপ প্রতি ম্যাচে ছড়িয়ে বিপক্ষকে ছারখার করে দিচ্ছেন এই মুম্বইকর। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।