Dengue death: ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে কলকাতায় মৃত্যু বাংলাদেশি মহিলার, সচেতনতার বার্তা মেয়রের

Advertisement

রাজ্যে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ডেঙ্গি। নভেম্বর শুরু হওয়ার পরেও ডেঙ্গির দাপট কমছে না। এরইমধ্যে কলকাতায় ডেঙ্গি আক্রান্ত মৃত্যু হল আরও এক মহিলার। আজ সকাল সওয়া ৯ টা নাগাদ ঢাকুরিয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি মারা যান। ৫৮ বছর বয়সী ওই মহিলা বাংলাদেশের নাগরিক। তিনি বাংলাদেশের নারাইলের বাসিন্দা।

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরেই ওই মহিলা ঢাকুরিয়ার ওই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। আগে থেকেই একাধিক সমস্যায় ভুগছিলেন ওই মহিলা। যার মধ্যে ক্যান্সারের পাশাপাশি হেপাটাইটিস বি’তে ভুগছিলেন তিনি। চিকিৎসা চলাকালীন সেপসিস ও মাল্টি অর্গান ফেলিওর হওয়ার কারণে ডেঙ্গি আক্রান্ত ওই মহিলার মৃত্যু হয়। চিকিৎসকদের মতে, বিভিন্ন রকম শারীরিক সমস্যার কারণে ওই মহিলা এমনিতেই দুর্বল ছিলেন। তার ওপর ডেঙ্গি দোসর হওয়ায় মহিলাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য, নভেম্বরেও কলকাতায় ডেঙ্গির উদ্বেগজনক ছবি ধরা পড়েছে। বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালের পরিসংখ্যান বলছে শহরে ডেঙ্গি বৃদ্ধি পেয়েছে ১৮ শতাংশ। পুরসভার তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল ডিসেম্বরের আগে পর্যন্ত ডেঙ্গি কমার কোনও সম্ভাবনা নেই। এই অবস্থায় সচেতনতার উপরেই জোর দিচ্ছে কলকাতা পুরসভা। মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, সচেতনতা বৃদ্ধি ছাড়া ডেঙ্গি রোধ করা সম্ভব নয়। প্রসঙ্গত, ডেঙ্গি রোধে ইতিমধ্যে একাধিক পদক্ষেপ করেছে স্বাস্থ্য ভবন। প্রয়োজনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসচেতনতা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে। স্বাস্থ্যভবনের পরিসংখ্যান বলছে, গত সপ্তাহে নতুন করে ৭০০ জনেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। এরই মধ্যে ম্যালেরিয়া সংক্রমণও বাড়ছে বলে রিপোর্ট প্রকাশ করে জানিয়েছে কেন্দ্র।

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।