মুসোলিনির ভূত ঘুরে বেড়াচ্ছে এই বাড়িতে! চাইলে আপনিও তাঁকে অনুভব করতে পারেন…। The owners of this Italian mansion say its haunted by Mussolini family ghosts

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: স্থান ইটালির ফোরলি শহরের কারপেনা এলাকা। এখানে রয়েছে বিশালাকার এক বাড়ি। একদা সেই বাড়িতে থাকতেন ইটালির শাসক মুসোলিনি ও তাঁর পরিবারের লোকজন। এখন সেই বাড়িতে নাকি মুসোলিনির ভূত ঘুরে বেড়াচ্ছে! তারা সেই ভূত ক্ষতিকর নয় বলেই জানা গিয়েছে। 

বাড়িটি দু’দশক আগে কিনেছিলেন এক ব্যবসায়ী। নাম তার ডোমেনিকো মোরোসিনি। এখন সেখানে হয়েছে এক মিউজিয়াম।  মিউজিয়ামে রয়েছে মুসোলিনির ব্যবহার করা বিভিন্ন জিনিসপত্র। ডোমেনিকোর দাবি, সেই বাড়িতে আজও নাকি ঘুরে বেড়ায় মুসোলিনি পরিবারের আত্মা! সম্প্রতি এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছে আন্তর্জাতিক এক সংবাদমাধ্যমে। মুসোলিনি ও তাঁর পরিবারের লোকের ব্যবহৃত ওই বাড়িতে এখন গড়ে তোলা হয়েছে এক মিউজিয়াম। সেই মিউজিয়ামে রয়েছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় মুসোলিনির ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিস– মুসোলিনির মিলিটারি ইউনিফর্ম, তাঁর বাইক, লোহার দোলনা, আয়না। মুসোলিনি ছাড়াও তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যের ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্রও সেখানে রয়েছে।

আরও পড়ুন: Russian-Ukraine War: ইউক্রেনের আক্রমণে ১ দিনেই ১০০০-এর বেশি রুশ সেনার মৃত্যু! বিধ্বস্ত রাশিয়া কি পিছু হটছে?

কারপেনার ওই ভিলা ২০০০ সালে কিনেছিলেন ইটালির ওই ব্যবসায়ী। তাঁরাই দাবি করছেন বাড়িটি ভূতুড়ে। স্থানীয়রাও একই দাবি করেছেন বলে শোনা গিয়েছে। ডোমেনিকো মোরোসিনি ও তাঁর স্ত্রী অ্যাডেলে দাবি করেছেন, কোনও এক অপ্রাকৃত অদ্ভূত আনক্যানি  শক্তিকে তাঁরা অনুভব করেছেন ওই বাড়িতে। তাঁদের দাবি, আত্মারা ওই বাড়িতে সব সময়েই ঘুরে বেড়ান। তবে তাঁরা এমন জানিয়েছেন, মুসোলিনি পরিবারের আত্মারা, তাঁরা ভূত-প্রেত যা-ই হোক না কেন, মোটেও ক্ষতিকর নয়। কেননা মিউজিয়ামে আসা দর্শকের কোনও অনিষ্ট তারা কখনও করেনি। বিষয়টি নিয়ে ডোমেনিকো একটু রসিকতা করেই তাই হয়তো বলেছেন– আমার মনে হয় ওরা আমাদের সম্মান করে। আমরা ওদের ভয় পাই না। আর, আমরাও ওই আত্মাদের বিরক্ত করতে চাই না। সেজন্যই রাতে ওই বাড়িতে ঢুকে ওদের কোনও অসুবিধা আমরা করি না।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।