খারাপ সময়, বিতর্ক দূরে সরিয়ে ফের স্বমহিমায় অ্যাডিলেডের রাজা ‘কিং কোহলি’

Advertisement

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: খারাপ সময় ও বিতর্ক সব অতীত। বড় মঞ্চে ম্যাচ উইনাররা জ্বলে ওঠেন। এই প্রবাদ যে সত্য, সেটা চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রতি ম্যাচে প্রমাণ করছেন বিরাট কোহলি। এমনতেই কাপ যুদ্ধে ফর্মের তুঙ্গে রয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক। এরমধ্যে আবার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নেমেছিলেন অ্যাডিলেডে। মহম্মদ আজহারউদ্দিন, ভিভিএস লক্ষ্মণের কাছে যেমন ইডেন গার্ডেন্স। অনিল কুম্বলের কাছে যেমন পুরনো আমলের ফিরোজ শাহ কোটলা। বিরাটের কাছে এই মাঠের বাইশ গজও তাই। ২০১২ সাল থেকে তরুণ বিরাটকে ‘ব্যাটার বিরাট-‘এর পরিচয় দিয়েছিল এই অ্যাডিলেড ওভাল। সব ফরম্যাটেই তিনি এই মাঠে সফল। সেটা বুধবার ফের বুঝিয়ে দিলেন এই মহা তারকা। 

অ্যাডিলেডে তাঁর ব্যাটিং ফর্ম নিয়ে এদিন গোটা ম্যাচজুড়ে চললো আলোচনা। খেলার শেষে যখন ম্যাচের সেরার পুরস্কার নিতে এলেন, তখনও ধারাভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে ফের জিজ্ঞেস করলেন এই প্রশ্ন। হাসি মুখে বিরাটের জবাব ছিল, ‘আমার কাছে এই স্টেডিয়াম অনেকটা ঘরের মতো। নেট, ইন্ডোর থেকে মেইন স্টেডিয়ামের পিচ, সবকিছুই আমাকে উজাড় করে দিয়েছে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এমসিজি-র ইনিংস স্পেশ্যাল হলেও এই মাঠের যেকোও ইনিংস আমার কাছে আলাদা গুরুত্ব বহন করে এসেছে। আশাকরি ভবিষ্যতেও অ্যাডিলেড আমাকে ভরিয়ে দেবে।’ 

আরও পড়ুন: IND vs BAN, ICC T20 World Cup 2022: বৃষ্টি ভেজা অ্যাডিলেডে ‘ভারত উদয়’, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে টাইগার্সদের হারিয়ে লিগ টেবলের শীর্ষে টিম ইন্ডিয়া

আরও পড়ুন: IND vs BAN, ICC T20 World Cup 2022: ডিএলএস নিয়মে ৫ রানে রুদ্ধশ্বাস জয়, শেষ চারের দিকে এগিয়ে গেল টিম ইন্ডিয়া

৪ ম্যাচে ২২০ রান করে এই মুহূর্তে প্রতিযোগিতার শীর্ষে রয়েছেন বিরাট। সঙ্গে রয়েছে তিনটি অর্ধ শতরান। গড় ২২০.০০। স্ট্রাইক রেট ১৪৪.৭৩। সর্বোচ্চ ৫৩ বলে অপরাজিত ৮২ রান। এত গেল এবারের পরিসংখ্যান। পয়া অ্যাডিলেডে তাঁর কীর্তি চোখ কপালে তুলে দেবে। ২০১২ সালে প্রথমবার অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়েই  এই মাঠে করেছিলেন ১১৬ রান। এরপর এল ২০১৪ সাল। মহেন্দ্র সিং ধোনি নির্বাসিত থাকার জন্য দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বিরাট। দুই ইনিংসে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছিল ১১৫ ও ১৪১ রান। 

৫০ ওভারের ক্রিকেটেও অ্যাডিলেডে দাপট দেখিয়েছিলেন বিরাট। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে করেছিলেন ১২৬ রানে ১০৭। ২০১৯ সালে ফের একবার এই মাঠেই শতরান করেছিলেন। প্রতিপক্ষ ছিল অস্ট্রেলিয়া। ১০৪ রানে দলকে ৬ উইকেটে জয় এনে দিয়েছিলেন ‘চেজ মাস্টার’। 

ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটেও অ্যাডিলেড তাঁকে ভরিয়ে দিয়েছে। ২০১৬ সালে অজিদের বিরুদ্ধে ৫৫ বলে ৯০ রানে অপরাজিত ছিলেন বিরাট। এরপরের ইনিংসটা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বুধবার। এদিন বিরাট ৪৪ বলে ৬৪ রানে অপরাজিত রইলেন। 

গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দলের জয় নিয়ে কোহলি মজা করে বলেছেন, ‘দারুণ হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হল। এতটা হাড্ডাহাড্ডি লড়াই অবশ্য আমরা পছন্দ করি না।’ তবে দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান নিজের পারফরম্যান্সেও তৃপ্ত কোহলি। এ নিয়ে বলেছেন, ‘মনে হয় ব্যাট হাতে আরও একটা ভালো দিন কাটাতে পারলাম। যখন মাঠে নেমেছিলাম একটু চাপ ছিল। নিজের মতো খেলার চেষ্টা করেছি। বল ভাল দেখতে পাচ্ছিলাম। উইকেটে গতি বেশ ভাল ছিল। এমন গতিই আমার পছন্দ।’ 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App) 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।