কথার জবাব কথায় দিন, আর লাঠির জবাব লাঠিতে দিন, রামপুরহাটে সুকান্ত

Advertisement

পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে ক্রমশ চড়ছে রাজনীতির পারদ। উন্নয়নের বিতর্ক ছেড়ে একে অপরকে হিংস্র আক্রমণের হুঁশিয়ারি দিচ্ছে বিরোধী দলগুলি। প্রায় রোজই প্ররোচনামূলক কথা বলছেন কোনও না কোনও রাজনৈতিক দলের নেতা। আর এই প্রতিযোগিতায় সব থেকে এগিয়ে তৃণমূল ও বিজেপি। বুধবার এই খেলায় ময়দানে নামলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। বীরভূমের রামপুরহাটে এক জনসভায় লাঠির জবাব লাঠি দিয়ে দিতে নিদান দিলেন তিনি।

এদিন সুকান্তবাবু বলেন, ‘মনে রাখবেন, ভয় মানে মৃত্যু। ভয় পাওয়ার দরকার নেই। আমরা ভারতের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। পৃথিবীর সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নাম নরেন্দ্র মোদী, আমাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর নাম অমিত শাহ, আর আমরা তৃণমূল কংগ্রেসের মতো চোর জোচ্চোরদের ভয় পাব? সেই দিন চলে গেছে। কথার জবাব কথায় দিন, আর লাঠির জবাব লাঠিতে দিন’।

সুকান্তর নিদান, ‘যদি দুধ দেয় ভালো করে কিসমিস দিয়ে পায়েস করে খাইয়ে দেবেন। যদি ভোট লুঠ করতে আসে তার সব কিছু লুঠ করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেবেন তাকে’।

মঙ্গলবার একই রকম হুঁশিয়ারি শোনা গিয়েছিল বিজেপির বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মণ্ডলের মুখে। জাহাজ প্রতিমন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরের সামনে তিনি বলেন, ‘ভোট লুঠ করতে এলে চার হাত বাঁশ দিয়ে মালাইচাকি ভেঙে দেবেন।’

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।