Covid:কোভিড রোগী ভর্তি হচ্ছেন না, বেডের সংখ্যা কমাচ্ছে কলকাতার বেসরকারি হাসপাতাল

Advertisement

কোভিডের দাপট অনেকটাই কমেছে। কোভিড ভীতিও আর আগের মতো নেই। এবার কলকাতার অন্তত দুটি বেসরকারি হাসপাতাল তাদের কোভিড বেড দ্বিতীয়বারের জন্য তুলে নিল।এদিকে গত ফেব্রয়ারি মাসে তৃতীয় ঢেউয়ের শেষ পর্বেই তারা হাসপাতাল থেকে কোভিড ইউনিটটি তুলে দিয়েছিল।

সূত্রের খবর, কিছুদিন ধরে আমরিতে কোনও কোভিড রোগী ভর্তি হয়নি। কোভিড রোগীদের জন্য আলাদা করে আর কোনও বেড চিহ্নিত করা নেই। অন্যদিকে মেডিকা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালেও কোনও কোভিড বেড নেই। দুটি হাসপাতালই পরিকল্পনা নিয়েছে যদি কোভিড রোগী ভর্তি হয় তবে তাদের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হবে।

আমরির তরফে একটি ইংরেজি সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়েছে, আমাদের অন্যান্য তিনটি ইউনিটে রোগী ভর্তির হার অনেকটাই  বেশি। সেক্ষেত্রে সেক্ষেত্রে আলাদা করে একটি ওয়ার্ড কোভিডের জন্য আলাদা করে রাখার মতো পরিস্থিতি নেই। সপ্তাহখানেক ধরে কোভিড রোগীদের ভর্তি প্রায় হচ্ছে না। যদি কোনও কোভিড রোগীকে ভর্তি হতে হয় তবে আমরা আইসোলেশন রুম ব্যবহার করব।

মেডিকার তরফে জানানো হয়েছে, অনেকদিন ধরেই কোভিড পেসেন্ট আসছেন না। এমনকী টেস্টের জন্য় যারা আসছেন তারাও নেগেটিভ। তিনমাস ধরে কোভিডের জন্য় চারটি বেড ছিল। কিন্তু সবগুলিই তুলে নেওয়া হয়েছে। যদি কোভিড রোগী আসেন তবে আলাদা রুম ব্যবহার করা হবে।

আরএন টেগোর ইন্টারন্যাশানাল ইনস্টিটিউট অফ কার্ডিয়াক সায়েন্সে ২০টি বেড রয়েছে। তবে আগামী সপ্তাহ থেকে সেই বেড কমিয়ে ৮টি করা হবে। কারণ কোভিড রোগী আসছেন না। চার্নক হাসপাতালেও মাত্র ১৮টি কোভিড বেড রয়েছে। তবে সেখানেও কেউ ভর্তি নেই। উডল্যান্ডসেও শেষ কোভিড রোগীকে শনিবার ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

 

Advertisement

Malek

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।